অনুগ্রহ করে অপেক্ষা করুন...
 

যামানার লক্ষ্যস্থল ওলীআল্লাহ, যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, ইমামুল আ’ইম্মাহ, মুহইস সুন্নাহ, ক্বাইয়্যুমুয্ যামান, কুতুবুল আলম, হুজ্জাতুল ইসলাম, সুলত্বানুল আউলিয়া ওয়াল মাশায়িখ, ছাহিবু সুলত্বানিন নাছীর,
মাহিউল বিদয়াহ, রসূলে নুমা, গাউছুল আ’যম, সাইয়্যিদুল আউলিয়া, ইমামুল উমাম, সাইয়্যিদুল খুলাফা, আস সাফফাহ, হাবীবুল্লাহ্, আওলাদে রসূল, রাজারবাগ শরীফ-এর মুর্শিদ ক্বিবলাহ
The Daily Al Ihsan
বিশ্বের সমস্ত দেশ থেকে পঠিত আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত এর
আক্বীদায় প্রতিষ্ঠিত একমাত্র আন্তর্জাতিক ইসলামী পত্রিকা
Arabic .  বাংলা .  Urdu .  English .  Japanese .  Swedish
৫ মাহে যিলহজ্জ, ১৪৩৫ হিজরী, ২ খমিছ, ১৩৮২ শামসি
১ অক্টোবর, ২০১৪ ঈসায়ী সন, ১৬ আশ্বিন, ১৪২১ ফসলী সন
ইয়াওমুল আরবিয়ায়ি (বুধবার)
al-ihsan al-ihsan al-ihsan
al-ihsan
মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার দোয়ার বরকতে মুসলমানদেরকে জুলুম নির্যাতন করার ফলে জুলুমবাজ কাফিরদের উপর খোদায়ী গজব
  • <font class='SlideCaptionBN'>জাপানে ওন্তেক  আগ্নেয়গিরি থেকে বিষাক্ত ধোয়া নির্গত হওয়ায় উদ্ধারকর্মীরা উদ্ধার তৎপরতা বন্ধ করে দিয়েছে।</font>
  • <font class='SlideCaptionBN'>দুই দিক থেকে দুই ঝড়ের আঘাতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যাঞ্চল।</font>
  • <font class='SlideCaptionBN'>উত্তর ক্যালিফোর্নিয়ার অধিকাংশ শহরে ৬০ দিন যাবত কোন পানি নাই।</font>
Al Baiyinaat : e Version Al Ihsan : e Version
সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ উপলক্ষে প্রকাশিত
পোষ্টার, স্ক্রিনসেভার, ওয়ালপেপার সমুহ ডাউনলোড করুন।
বিশ্বের সমস্ত দেশ ও শহর থেকে পঠিত
ইসলামী শরীয়ত সম্মত একমাত্র পত্রিকা
"দৈনিক আল ইহসান"

বিজ্ঞাপনের মুল্য তালিকা
নামাজের সময়সূচী
জেলা : ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকা
ওয়াক্তশুরুশেষ
সাহ্‌রীর শেষ সময়০৪:৩০
ফজর০৪:৩৫০৫:৪৮
ইশরাক০৬:১২০৭:২৮
চাশত্‌০৭:২৯১০:৪৯
জাওয়াল১১:৪৯যোহর নামায পড়ার পূর্ব পর্যন্ত
যোহর১১:৪৯০৪:০৭
আছর০৪:০৮০৫:৩০
মাগরিব০৫:৫৩০৭:০২
আওয়াবীনবাদ মাগরিব০৭:০২
ইশা০৭:০৩০৪:৩১
তাহাজ্জুদ১১:১২০৪:৩১
আগামীকাল ফজর০৪:৩৬০৫:৪৮
আগামীকাল সূর্যোদয়০৫:৪৯-
আজ সূর্যোদয়০৫:৪৯-
আজ সূর্যাস্ত০৫:৪৮-
সূত্র: গবেষণা কেন্দ্র- মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ, ঢাকা

 
Saieedul Aaiyad
Saieedul Aaiyad
Saieedul Aaiyad
RajarbagShareef.net
Radio 'Al-Hikmah'
Special Days in Islam
majlisu-ruiatil-hilal
International Voice Room
Noorun Alaa Noor
Donate for Daily Al Ihsan Shareef Donate for Daily Al Ihsan Shareef


» কোরআন শরীফের তরজমা ও তাফছির(তরজমায়ে মুজাদ্দিদে আজম)
» ফিক্বহুল হাদিস ওয়াল আছার
» আহ্‌লে সুন্নাত ওয়াল জামাতের আক্বীদা
» মারিফাতুছ ছাহাবা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম
» আউলীয়া-ই-কিরাম রহমতুল্লাহী আলাইহিম
 
» আত-তাক্বউইমুশ শামসি
» ইসলামের বিশেষ দিন সমূহ
» আহ্‌কামু রমাদ্বানাল মুবারক
» আহ্‌কামুয্‌যাকাত
(যাকাতের হুকুম-আহ্‌কাম)
» বিষয় ভিত্তিক বিশেষ প্রবন্ধ
 
» মাসিক আল বাইয়্যিনাত
» ওয়াজ শরীফ
» ক্বাছীদা আনজুমান
» মক্ববুল মুনাজাত শরীফ
» প্রকাশিত কিতাব সমূহ
 
» ফতওয়া বিভাগ
» সুওয়াল জাওয়াব বিভাগ
» মাসের ফজিলত ও প্রাসঙ্গিক আলোচনা
 
» পত্রিকার মূল সংস্করণ
 
» আপনার মতামত পাঠান
» আর্কাইভ থেকে পড়ুন
 
» সুন্নতি সামগ্রী
» কবিতা
» সবুজ বাংলা ব্লগ

 
মুজাদ্দিদে আ’যম হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম-উনার ক্বওল শরীফ
মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘যাদের পথ ও পবিত্র ঈমান-আমল উনার নিরাপত্তা ও আর্থিক সঙ্গতি রয়েছে তাদের উপর মহান আল্লাহ পাক উনার জন্য পবিত্র হজ্জ সম্পাদন করা ফরয।’
নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘হে মানুষেরা!
তোমাদের উপর পবিত্র হজ্জ ফরয করা হয়েছে। সুতরাং তোমরা পবিত্র হজ্জ আদায় করো।’
সম্মানিত দ্বীন ইসলাম উনার দৃষ্টিতে পবিত্র হজ্জ একটি বুনিয়াদী ফরয ইবাদত।
পবিত্র হজ্জ উনার বিরোধিতা করা কাট্টা কুফরী।
পবিত্র হজ্জ এবং নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বিরুদ্ধে কটু মন্তব্য করে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী লতিফ সিদ্দিকী মুরতাদ হয়ে গেছে।
যদি সে ৩ (তিন) দিনের মধ্যে তওবা না করে, তবে সম্মানিত ইসলামী শরীয়ত উনার দৃষ্টিতে তার একমাত্র শাস্তি হচ্ছে মৃত্যুদন্ড।
৯৭ ভাগ মুসলমান ও রাষ্ট্রদ্বীন ইসলাম উনার দেশের সরকারের জন্য ফরয হচ্ছে- অতি শীঘ্রই উক্ত মুরতাদ মন্ত্রীকে বহিষ্কার করা, গ্রেফতার করা এবং সম্মানিত শরীয়ত অনুযায়ী শাস্তির ব্যবস্থা করা।
আপনাদের মতামত
মুজাদ্দিদে আ’যম সাইয়্যিদুনা ইমাম রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার মকবুল মুনাজাত শরীফ উনার বেমেছাল রূহানীয়ত সমৃদ্ধ রোব মুবারক উনার ফলেই খোদায়ী গযবে পর্যুদস্ত বিশ্বের সকল কাফির-মুশরিকদের দেশ
নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার শান মুবারক-এ চরম বেয়াদবী এবং পবিত্র হজ্জ নিয়ে চরম কুফরীমূলক বক্তব্য দেয়ায় টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী লতিফকে মন্ত্রিসভা থেকে বহিষ্কার করতে হবে এবং মৃত্যুদণ্ড দিতে হবে
তার নাম লতিফ সিদ্দিকী নয়, ভগবান দাস! কারণ পবিত্র হজ্জে টাকা খরচ করলে তার গায়ে লাগে কিন্তু পূজার জন্য কোটি কোটি টাকা অপচয় করলেও তার গায়ে লাগে না। নাউযুবিল্লাহ!
পবিত্র হজ্জ এবং নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে নিয়ে কটূক্তি:
তার, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর
অপসারণসহ উপযুক্ত বিচার চাই!!!
ভারত কেন সীমান্তে মুসলমানদের শহীদ করে-১
‘সউদী আরব’ নামের উৎস এবং ইসরাইল গঠনে ওহাবী, ইহুদী ইবনে সউদের ভূমিকা (১)
সম্পাদকীয়
সমস্ত প্রশংসা মুবারক খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার জন্য; যিনি সকল সার্বভৌম ক্ষমতার মালিক। সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নবী আলাইহিমুস সালাম উনাদের নবী, রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদের রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার প্রতি অফুরন্ত পবিত্র দুরূদ শরীফ ও সালাম মুবারক।
পশু সঙ্কটের আশঙ্কা না থাকলেও পথে পথে চাঁদাবাজি এবং বাজারগুলোতে নিয়ন্ত্রণহীন ‘খুঁটি বাণিজ্যের’ কারণে এবার গরু-ছাগলের দাম ক্রেতাদের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।
পশু ব্যবসায়ীদের থেকে প্রাপ্ত সংবাদে জানা গেছে, দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে গরু নিয়ে আসার সময় মহাসড়কগুলোতে দফায় দফায় চাঁদা দিতে হয়। নগরীতে প্রবেশের পরও চাঁদাবাজদের হাত থেকে রক্ষা পাচ্ছেন না ব্যবসায়ীরা। দূর-দূরান্ত থেকে আনা গরু জোর করে নিজেদের হাটের দিকে নিয়ে যাচ্ছে নগরীর বিভিন্ন পয়েন্টে ওঁৎপেতে থাকা ইজারাদারদের এজেন্ট ও সন্ত্রাসীরা। গরু ব্যবসায়ীরা যেতে না চাইলে চাঁদা দাবি করা হচ্ছে। নগরীর বিভিন্ন স্থানে সংঘবদ্ধ চক্রকে চাঁদা দিতে হচ্ছে গরু ব্যবসায়ীদের। চক্রটির সাথে বাজারের ইজারাদারদের যোগসাজশ রয়েছে। নিজেদের বাজারে গরু ব্যবসায়ীদের নিয়ে যেতে পারলে ঐ চক্রটিকে নির্দিষ্ট অঙ্কের টাকা দেয় ইজারাদাররা। প্রতিটি গরুর জন্য ৫০০ থেকে ২০০০ টাকা পর্যন্ত জোর করে আদায় করা হচ্ছে।
অন্যদিকে এবছর বিভিন্ন হাটে গরুর খুঁটির (স্থানীয় ভাষায় ‘খাইন’) ভাড়াও আগের তুলনায় অনেক বাড়ানো হয়েছে। একেকটি খাইনে ৯ থেকে ১৫টি গরু রাখা যায়। প্রতিটি খাইনের জন্য ৪০ থেকে ৫০ হাজার টাকা ভাড়া চাওয়া হচ্ছে। এই হারে প্রতিটি গরু হাটে রাখার খরচই পড়ছে গড়ে কমপক্ষে চার হাজার টাকা।
এদিকে পশুর হাটে জাল টাকার দৌরাত্ম্য তো আছেই। বাড়তি লাভের আশায় বিভিন্ন জেলা শহর থেকে ব্যবসায়ীরা আসে রাজধানীর কুরবানির পশুর হাটে। একটু লাভের আশায় দিন রাত পড়ে থাকে গাবতলী, যাত্রাবাড়িসহ আশপাশের হাটে। কিন্তু সরকার তাদের থাকা খাওয়ার জন্য কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করে না।
ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, উত্তরবঙ্গ থেকে ঢাকার গাবতলী পর্যন্ত আসতে নানা জায়গায় পড়তে হয় চাঁদাবাজদের খপ্পরে।
অনেক গরু ব্যবসায়ীর অভিজ্ঞতা, ‘রাস্তায় চাঁদাবাজরা চাকু ধরে সর্বস্ব নিয়ে যায়। অনেক সময় মারধর করে। আবার অনেক সময় গুলি করে বা চাকুর আঘাতে আহতও করে।’
অন্যদিকে মহাসড়কে গরু তোলার আগেই হয় অনেক ধাপ চাঁদাবাজি ও ভোগান্তি। লাভের টাকা কুমিরে খায় উল্লেখ করে অনেক ব্যবসায়ী জানায়, জাল টাকার দৌরাত্ম্যে অনেক সময় নিঃস্ব হয়ে বাড়ি ফিরেছে তারা।
এদিকে এসব অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করেছে সরকারের প্রভাবশালী মন্ত্রীরাও।
‘ঈদের আগে পশুবাহী গাড়ি ও যাত্রী পরিবহনে চাঁদাবাজির অভিযোগ অমূলক নয়।’ গত ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৪ ঈসায়ী, জুমুয়াবার সাভারের আশুলিয়ায় বাইপাইল পয়েন্ট পরিদর্শনে গিয়ে যোগাযোগমন্ত্রী এসব কথা বলেছে।
সরকারের নিষ্ক্রিয়তায় চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে মুখ খোলার উপায় নেই। মুখ খুললেই ব্যবসা বন্ধ। চাঁদাবাজরা স্থানীয় ও সরকারদলীয়, কিন্তু ব্যবসায়ীরা বহিরাগত। তাই নীরবে সহ্য করতে হচ্ছে চাঁদাবাজদের অত্যাচার।
অপরদিকে গরু ভারত থেকে কিনে সীমান্ত পার করে খাটাল পর্যন্ত আনতে লাগে প্রতিটি গরুতে ৪,২৭০ টাকা। ভারতে বিএসএফের নামে গরু প্রতি আদায় করা হয় ২,২৫০ টাকা। একইভাবে সীমান্তের এপারে বিজিবি’র নামে আদায় করা হয় আরো ১৫০০ টাকা। এরপর নিচের খাটালে ‘ঘ্যানা’ সিন্ডিকেটের ক্যাডার ফি ১৭০ টাকা নির্ধারিত। তারপর কথিত খাটাল মালিকের ট্যাক্স বাবদ গুণতে হয় ৩৫০ টাকা। এমনকি ভারত থেকে বিএসএফের গুলি উপেক্ষা করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যে রাখাল গরু আনে তাদেরকেও গুণতে হয় ১০০ টাকা করে। বর্তমানে প্রতিদিন অন্তত ৪/৫ হাজার রাখাল গরু আনতে যায়। এরপর চলে বিকিকিনির পালা। যেখানে রয়েছে, গরু ক্রেতার দফায়-দফায় খরচ। খাটাল ও হাটে গরু প্রতি সরকারি করিডরে ৫০০ টাকা দেয়ার নিয়ম। সেখানে ভ্যাট বাবদ আদায় করা হচ্ছে সাড়ে ১২শ’ টাকা। এছাড়া ভ্যাটের কাগজে বিজিবি’র সিল মারা বাবদ নেয়া হয় ১৫০ টাকা, স্থানীয় সিন্ডিকেটের বিট ও চালান বাবদ ২৫০ টাকা, সিন্ডিকেট ট্যাক্স ২০০ টাকা, সরকারি বিভিন্ন সংস্থার নামে ৩০০ টাকা, ইউনিয়ন ট্যাক্স বাবদ ১২০ টাকা, বিভিন্ন সন্ত্রাসী বাহিনীর খরচসহ সবমিলিয়ে গরু প্রতি ৪ হাজার টাকা দিতে হয়। গরু সংগ্রহের শুরু থেকে হাটে তোলা পর্যন্ত চাঁদার টাকা গুনতে গুনতে গরু ব্যবসায়ীরা নাকাল হয়ে পড়ছে।
এদিকে প্রতি বছরের মতো পশুহাট কেন্দ্র করে রাজধানীর ছিনতাইকারী, অজ্ঞানপার্টি, মলমপার্টি এবং ছিঁচকে চোররা এবারও সক্রিয় হয়ে উঠছে। পশুহাটে ছড়িয়ে পড়ছে জাল টাকা। এছাড়া ঈদুল আযহা সামনে রেখে প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারতীয় সীমান্ত বাহিনী বিএসএফ নির্মম ও পৈশাচিক আক্রমণ করছে।
প্রসঙ্গত ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যেকার কথিত অবৈধ পশু ব্যবসার প্রেক্ষিতে বলতে হয়, ৫০০ মিলিয়ন ডলারের এই বাণিজ্য থেকে দুই দেশের সরকারই রাজস্ব হারাচ্ছে। এটি ভারতের দৃষ্টিতে অবৈধ। এই ব্যবসার অনুমতি দেয়ার ক্ষেত্রে অজুহাত হিসেবে ভারতের তথাকথিত ধর্মীয় আবেগের কথা বলা হয়। কিন্তু সেক্ষেত্রে কৃষির বিষয় উল্লেখ করেই আমাদের কাছে ভারত সবসময়ই গরু রফতানী করতে পারে। এর আগেও ভারতের সীমান্ত বাহিনী বিএসএফের এক মহাপরিচালক পশু বাণিজ্যের বৈধতা দেয়ার পরামর্শ দিয়ে বলেছিলো, এটি করা হলে সীমান্তরক্ষীরা মাদক ও অস্ত্র পাচারের মতো অন্যান্য পণ্য চোরাচালান বন্ধে নজর দিতে পারবে। কিন্তু সীমান্তের দুই পাশ থেকেই এই ব্যবসাকে বৈধতা দেয়ার বিষয়ে শক্ত বাধা আছে বলে পর্যবেক্ষক মহল মন্তব্য করেন। বহুল প্রচারণা চালানো হয়, বাংলাদেশ ভারতের বন্ধু রাষ্ট্র। সঙ্গতকারণেই তাই এ ইতিবাচক ধারণা ভারতের সীমান্ত ব্যবস্থাপনায় প্রতিফলিত হওয়া উচিত। বাংলাদেশ ভারতের সাথে বাংলাদেশের বিশাল বাণিজ্যের তালিকায় গরুও আবশ্যিকভাবে থাকা উচিত।
মূলত, যথাযথভাবে ও মহাসমারোহে পবিত্র দ্বীন ইসলাম পালনের পৃষ্ঠপোষকতা করার অভিপ্রায় সরকারের নেই। এবং জনগণেরও নেই। জনগণ এসব বিষয়ে একদিকে সরকারের প্রতি জোর দাবি জানায় না। পাশাপাশি সরাকরের উদাসীনতার বিপরীতে কোনো প্রতিবাদও করে না। অথচ বাংলাদেশের সাংবিধানিক দ্বীন হচ্ছে পবিত্র দ্বীন ইসলাম। কাজেই কুরবানীর মতো সম্মানিত ইসলামী অনুষঙ্গের প্রতি অবহেলা করলে সরকার ও জনগণ উভয়েই যুগপৎভাবে দায়ী হবে। উভয়কেই সঙ্গতকারণে ইসলামপ্রবণ হতে হবে।
মূলত, এসব অনুভূতি ও দায়িত্ববোধ আসে পবিত্র ঈমান ও পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনাদের অনুভূতি ও প্রজ্ঞা থেকে। আর তার জন্য চাই নেক ছোহবত তথা মুবারক ফয়েজ, তাওয়াজ্জুহ। যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, যামানার মুজাদ্দিদ, মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার নেক ছোহবতেই সে মহান ও অমূল্য নিয়ামত হাছিল সম্ভব। মহান আল্লাহ পাক তিনি আমাদেরকে তা নছীব করুন। (আমীন)
বিশেষ প্রতিবেদন
গণধোলাই খেয়েও গণধিক্কার পেয়েও লাজ হয়নি বেহায়া সিএইচটি’র।
বিজিবি’র বিপক্ষে এবং পাহাড়ি উপজাতিদের পক্ষ অবলম্বন করে পাহাড়ি উপজাতি সন্ত্রাসীদের লেলিয়ে দিয়েছে তারা।
বিদেশী অর্থায়নে ও ষড়যন্ত্রে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব বিরোধী এজেন্ডা চালিয়ে যাচ্ছে সিএইচটি।
পাহাড়ি উপজাতি সন্ত্রাসীদের পক্ষে জোর তৎপরতা;
কিন্তু নিপীড়িত বাঙালিদের ক্ষেত্রে নিরেট নীরবতা- এই কী তাদের মানবাধিকার প্রবণতা?
বিদেশী মদদপুষ্ট সিএইচটি কমিশনের দালালদের নীতিভ্রষ্টতা ও কলঙ্কিত ইতিহাস সম্পর্কে ধর্মপ্রাণ ও দেশপ্রেমিক মুসলমানদের অবগত হতে হবে।
পবিত্র দ্বীন ইসলাম, মুসলমান ও বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের জাল বিস্তারকারী বিতর্কিত সিএইচটি কমিশন অবিলম্বে নিষিদ্ধ করতে সরকারকে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে হবে। (৪)
ফিরে দেখা ইতিহাস
ঘাতক রাজাকার, আল-বাদর মওদুদী জামাতী, দেওবন্দী খারিজী, ওহাবী সালাফীদের দিনলিপি
৩০ সেপ্টেম্বর ১৯৭১ ঈসায়ী
মুক্তিযুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধ: গো’আযম বাংলাদেশের হিটলার
রাষ্ট্রক্ষমতা দখলই জেএমবি ওহাবীদের প্রধান খায়েশ-২
দেশের খবর
পবিত্র হজ্জ ও হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে নিয়ে কটূক্তি:
ধর্মদ্রোহী মন্ত্রীর শাস্তির দাবিতে উত্তাল সারাদেশ ॥
* লতিফকে মন্ত্রিসভা থেকে অব্যাহতির সিদ্ধান্ত
লতিফ সিদ্দিকীর বক্তব্য আওয়ামী চরিত্রের বহিঃপ্রকাশ -রিজভী
লতিফ সিদ্দিকীকে পাথর মারলে সওয়াব হবে -পার্থ
লতিফ সিদ্দিকীকে গ্রেফতারের দাবি এরশাদের
প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরলেই লতিফ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা
ফেরাউনের ঔদ্ধত্য লতিফদের প্রেরণা - ফখরুল
অব্যাহতি যথেষ্ট নয়, গ্রেপ্তার দাবি লতিফের -তরিকুল
লতিফ সিদ্দিকীর শাস্তির দাবি নজরুল ইসলাম খানের
লতিফ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে সিলেটে মামলা
লতিফকে জনগণের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে : দুদু
‘মুখফোড়রা অনেক কিছুই বলে, তা গ্রহণযোগ্য নয়’
দুই দিনের বিক্ষোভের ডাক লতিফ সিদ্দিকী মুরতাদ: হেফাজত
মুন্সীগঞ্জে ৩টি লঞ্চকে ৮৩ হাজার টাকা জরিমানা
দেশব্যাপী বন্যা ও নদী ভাঙনে সংসদীয় কমিটির উদ্বেগ
সাড়ে ১১ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে ৫৩টি নৌ-রুটে ক্যাপিটাল ড্রেজিং প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে -প্রধানমন্ত্রী
প্রবীণদের অধিকার সংরক্ষণে প্রয়োজনীয় সহায়তা ও সুযোগ-সুবিধা প্রদান অপরিহার্য -রাষ্ট্রপতি
যশোরে ৩১৫ বোতল ভারতীয় ফেনসিডিল আটক
কিস্তি পরিশোধে গ্রামীন ব্যাংক কর্মকর্তাদের চাপের মুখে গৃহবধূর আত্মহত্যা
কুরবানীর হাটে নেই পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা: আমিনবাজারে ২৩টি গরু ছিনতাই
বাংলাদেশে সার কারখানা নির্মাণে আগ্রহী চেক প্রজাতন্ত্র -শিল্পমন্ত্রী
জুমুয়াবারের মধ্যে চামড়ার মূল্য নির্ধারণের নির্দেশ বাণিজ্যমন্ত্রীর
শেখ মুজিব জাতির জনক নন -তারেক
ঈদ সামনে, বাড়ছে রেমিটেন্স
পর্যাপ্ত ব্যাংক ঋণ না পেয়ে খুশি নন চামড়া ব্যবসায়ীরা
২৬ মার্চের মধ্যেই চূড়ান্ত হচ্ছে মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা
৩৬ ঘণ্টায় পশুবর্জ্য অপসারণ করবে ডিএনসিসি
রেলে নিয়োগ দুর্নীতি: মৃধাকে বাদ দিয়ে অভিযোগপত্র
পাওয়ার গ্রিডের ২১৬ কোটি টাকার কাজ পেল ভারতীয় এবিবি
নূর হোসেনের এক বছর সশ্রম কারাদ-
বিপুল পরিমাণ পর্ণো সিডি, বই আটক
সোনালী ব্যাংকের সাবেক জিএম-এজিএমসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা
রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় ট্রেনে কাটা পড়ে দুই জনের মৃত্যু
ফেনসিডিলসহ সাবেক সেনা সদস্য আটক
লতিফ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন -প্রধান
লতিফের বক্তব্যে আমি স্তম্ভিত ও মর্মাহত -বদরুদ্দোজা
রাজশাহীতে ২ কোটি টাকার মাদক ধ্বংস
রাজধানীতে অনুমোদনহীন ওষুধ কোম্পানিতে ডিবির অভিযান : আটক ৩
সাভারে ব্যবসায়ীদের বিদ্যুৎ অফিস ঘেরাও
রাজধানীতে ভুয়া র‌্যাব সদস্যসহ গ্রেফতার ৪
দুর্ঘটনা প্রতিরোধে মাওয়ায় নির্মিত হচ্ছে সুউচ্চ টাওয়ার
Anjuman-e Al Baiyinaat, Sweden
কবিতা






For the satisfaction of Mamduh Hazrat Murshid Qeebla Alaihis Salam
Site designed & developed by Muhammad Shohel Iqbal