অনুগ্রহ করে অপেক্ষা করুন...
 

যামানার লক্ষ্যস্থল ওলীআল্লাহ, যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, ইমামুল আ’ইম্মাহ, মুহইস সুন্নাহ, ক্বাইয়্যুমুয্ যামান, কুতুবুল আলম, হুজ্জাতুল ইসলাম, সুলত্বানুল আউলিয়া ওয়াল মাশায়িখ, ছাহিবু সুলত্বানিন নাছীর,
মাহিউল বিদয়াহ, রসূলে নুমা, গাউছুল আ’যম, সাইয়্যিদুল আউলিয়া, ইমামুল উমাম, সাইয়্যিদুল খুলাফা, আস সাফফাহ, হাবীবুল্লাহ্, আওলাদে রসূল, রাজারবাগ শরীফ-এর মুর্শিদ ক্বিবলাহ
The Daily Al Ihsan
বিশ্বের সমস্ত দেশ থেকে পঠিত আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত এর
আক্বীদায় প্রতিষ্ঠিত একমাত্র আন্তর্জাতিক ইসলামী পত্রিকা
Arabic .  বাংলা .  Urdu .  English .  Japanese .  Swedish
২৮ মাহে মুহররমুল হারাম, ১৪৩৬ হিজরী, ২৪ সাদিছ, ১৩৮২ শামসি
২২ নভেম্বর, ২০১৪ ঈসায়ী সন, ৮ অগ্রহায়ন, ১৪২১ ফসলী সন
ইয়াওমুস্‌ সাবতি (শনিবার)
al-ihsan al-ihsan al-ihsan
al-ihsan
মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার দোয়ার বরকতে মুসলমানদেরকে জুলুম নির্যাতন করার ফলে জুলুমবাজ কাফিরদের উপর খোদায়ী গজব
  • <font class='SlideCaptionBN'>যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক স্টেটে ব্যাপক তুষারপাতে বাড়িঘরের ছাদ ধসে পড়েছে, </font>
  • <font class='SlideCaptionBN'>ঘরবাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ক্ষতি হয়েছে। </font>
  • <font class='SlideCaptionBN'>দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। </font>
  • <font class='SlideCaptionBN'>এতে মহাসড়কগুলোতে দুই রাত যানবাহন আটকা পড়ায় </font>
  • <font class='SlideCaptionBN'>আরোহীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।</font>
Al Baiyinaat : e Version Al Ihsan : e Version
সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ উপলক্ষে প্রকাশিত
পোষ্টার, স্ক্রিনসেভার, ওয়ালপেপার সমুহ ডাউনলোড করুন।
বিশ্বের সমস্ত দেশ ও শহর থেকে পঠিত
ইসলামী শরীয়ত সম্মত একমাত্র পত্রিকা
"দৈনিক আল ইহসান"

বিজ্ঞাপনের মুল্য তালিকা
নামাজের সময়সূচী
জেলা : ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকা
ওয়াক্তশুরুশেষ
সাহ্‌রীর শেষ সময়০৪:৫৪
ফজর০৪:৫৯০৬:১৫
ইশরাক০৬:৩৯০৭:৪৯
চাশত্‌০৭:৫০১০:৪৪
জাওয়াল১১:৪৫যোহর নামায পড়ার পূর্ব পর্যন্ত
যোহর১১:৪৫০৩:৩৬
আছর০৩:৩৭০৪:৫৪
মাগরিব০৫:১৭০৬:৩০
আওয়াবীনবাদ মাগরিব০৬:৩০
ইশা০৬:৩১০৪:৫৪
তাহাজ্জুদ১১:০৬০৪:৫৪
আগামীকাল ফজর০৪:৫৯০৬:১৫
আগামীকাল সূর্যোদয়০৬:১৬-
আজ সূর্যোদয়০৬:১৬-
আজ সূর্যাস্ত০৫:১২-
সূত্র: গবেষণা কেন্দ্র- মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ, ঢাকা

 
Saieedul Aaiyad
Saieedul Aaiyad
Saieedul Aaiyad
RajarbagShareef.net
Radio 'Al-Hikmah'
Special Days in Islam
majlisu-ruiatil-hilal
International Voice Room
Noorun Alaa Noor
Donate for Daily Al Ihsan Shareef Donate for Daily Al Ihsan Shareef


» কোরআন শরীফের তরজমা ও তাফছির(তরজমায়ে মুজাদ্দিদে আজম)
» ফিক্বহুল হাদিস ওয়াল আছার
» আহ্‌লে সুন্নাত ওয়াল জামাতের আক্বীদা
» মারিফাতুছ ছাহাবা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম
» আউলীয়া-ই-কিরাম রহমতুল্লাহী আলাইহিম
 
» আত-তাক্বউইমুশ শামসি
» ইসলামের বিশেষ দিন সমূহ
» আহ্‌কামু রমাদ্বানাল মুবারক
» আহ্‌কামুয্‌যাকাত
(যাকাতের হুকুম-আহ্‌কাম)
» বিষয় ভিত্তিক বিশেষ প্রবন্ধ
 
» মাসিক আল বাইয়্যিনাত
» ওয়াজ শরীফ
» ক্বাছীদা আনজুমান
» মক্ববুল মুনাজাত শরীফ
» প্রকাশিত কিতাব সমূহ
 
» ফতওয়া বিভাগ
» সুওয়াল জাওয়াব বিভাগ
» মাসের ফজিলত ও প্রাসঙ্গিক আলোচনা
 
» পত্রিকার মূল সংস্করণ
 
» আপনার মতামত পাঠান
» আর্কাইভ থেকে পড়ুন
 
» সুন্নতি সামগ্রী
» কবিতা
» সবুজ বাংলা ব্লগ

 
মুজাদ্দিদে আ’যম হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম-উনার ক্বওল শরীফ
মহান আল্লাহ পাক তিনি স্বয়ং নিজেই পর্দা ফরয করেছেন।
নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি শরয়ী পর্দা করার জন্য মুবারক নির্দেশ দিয়েছেন ও শরয়ী পর্দা করার তর্জ-তরীক্বাও শিক্ষা দিয়েছেন।
অতএব, কোনো রাষ্ট্রপতি হোক বা কোনো প্রধানমন্ত্রী হোক অথবা কোনো মন্ত্রী বা কোনো আমলা হোক অথবা দুনিয়াবী দৃষ্টিতে কোনো বিশেষ ব্যক্তিত্বই হোক না কেন, কারো জন্যই সম্মানিত শরয়ী পর্দা উনার বিরোধী কোনো বক্তব্য দেয়া জায়িয নেই। যদি কেউ দেয়, তাহলে অবশ্যই তাকে ক্ষমা চাইতে হবে।
কাজেই সবাইকে সম্মানিত ইসলামী শরীয়ত অনুযায়ী কথা বলতে হবে।
আর ৯৭ ভাগ মুসলমান অধ্যুষিত দেশের সরকার এবং সকল মুসলিম-অমুসলিম দেশের সরকারের জন্য ফরয হলো- সম্মানিত শরয়ী পর্দা উনার বিরোধীদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ করা।
ইসলামী শিক্ষা
পবিত্র মীলাদ শরীফ ও পবিত্র ক্বিয়াম শরীফ উনাদের সঠিক ও গ্রহণযোগ্য ফায়ছালা (৪৩৯)
নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত আব্বাজান সাইয়্যিদুন নাস, সাইয়্যিদুল বাশার, মালিকুল জান্নাহ সাইয়্যিদুনা যবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম উনার এবং আম্মাজান সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, আফদ্বালুন নাস আফদ্বলুন নিসা বা’দা রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, মালিকাতুল জান্নাহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মু রসূলিনা আলাইহাস সালাম উনাদের বেমেছাল ফাযায়িল-ফযীলত, বুযূর্গী-সম্মান মুবারক ও পবিত্রতা মুবারক -৩
গ্রন্থ সমালোচনা
জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড কর্তৃক ৩য় শ্রেণীর পাঠ্যপুস্তকরূপে নির্ধারিত
‘ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা’ বইয়ের যে বিষয়গুলো সংশোধন করা জরুরী অর্থাৎ ফরয
আপনাদের মতামত
মুজাদ্দিদে আ’যম সাইয়্যিদুনা ইমাম রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার মকবুল মুনাজাত শরীফ-এ বেমেছাল রূহানীয়ত সমৃদ্ধ রোব মুবারক উনার ফলেই খোদায়ী গযবে পর্যুদস্ত বিশ্বের সকল কাফির-মুশরিকদের দেশ
সেনাবাহিনী বিরোধীরা দেশ বিরোধী, তাদের কথায় কর্ণপাত না করে সেনা সদস্য ও পরিধি বাড়াতে হবে, প্রতিটি জেলায় সেনানিবাস করতে হবে
নিজেরা অসভ্য, বর্বর, পশুর মতো না হলে হিন্দু সম্প্রদায়ের দালালি করবে কিভাবে? আবুল মকসুদ, রুবায়েত ফেরদৌস গং কী এদেশে হিন্দু অসভ্যতা প্রতিষ্ঠিত করতে চায়? -১
ভারতের মুসলমানদের এখনই সময় বিদ্রোহ ঘোষণা করার
হিন্দু শব্দের মধ্যেই রয়ে গেছে হিন্দুদের নাপাকীর পরিচয়
সম্পাদকীয়
সমস্ত প্রশংসা মুবারক খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার জন্য; যিনি সকল সার্বভৌম ক্ষমতার মালিক। সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নবী আলাইহিমুস সালাম উনাদের নবী, রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদের রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার প্রতি অফুরন্ত পবিত্র দুরূদ শরীফ ও সালাম মুবারক।
সকল যুক্তি তথ্য জনমত অগ্রাহ্য করে সরকার বারবার গ্যাস, তেল, বিদ্যুতের দাম বাড়িয়েই যাচ্ছে। বর্তমান সরকার ২০০৯ সালে ক্ষমতায় আসার পর ৬ বার তেল-গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়িয়েছে। এখন আবার আগামী ২০১৫ সালের পহেলা জানুয়ারি থেকেই গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হচ্ছে। পিডিবি বর্তমান মূল্য চার টাকা ৭০ পয়সা থেকে বাড়িয়ে পাঁচ টাকা ৫১ পয়সা করার প্রস্তাব দিয়েছে।
এদিকে আবারও গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে গ্যাস বিতরণকারী কোম্পানিগুলো। আবাসিক খাতে গ্যাসের দাম দ্বিগুণেরও বেশি অর্থাৎ এক চুলার ক্ষেত্রে প্রতি মাসে ৪০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৮৫০ টাকা এবং দুই চুলার ক্ষেত্রে ৪৫০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১০০০ টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছে। আগামী জানুয়ারি থেকেই নতুন দাম কার্যকর করতে গত ইয়াওমুল আহাদ অর্থাৎ রবিবার বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের (বিইআরসি) কাছে কোম্পানিগুলো আলাদাভাবে এ প্রস্তাব দিয়েছে। আগে সিদ্ধান্ত নিয়ে পরে বিইআরসি’র মাধ্যমে লোক দেখানো গণশুনানি করে তেল, গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর এই প্রক্রিয়া নতুন নয়।
মূলত, বিদ্যুৎ ও গ্যাসের মূল্য বারবার বৃদ্ধির অন্যতম কারণ সরকারের দুর্নীতি। আর গ্যাস-বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধির জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) এক্ষেত্রে নিজের দায়িত্ব পালন করছে না। বরং বিইআরসি এখন সরকারের ‘সিদ্ধান্ত পালনকারী’ একটি সংস্থায় পরিণত হয়েছে।
গ্যাস খাতে সরকারের কোনো ভর্তুকি দেয়া লাগে না। গড়ে প্রায় চার হাজার কোটি টাকা রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা দিচ্ছে পেট্রোবাংলা। এ অবস্থায় কেন দাম বাড়াতে হবে? তাছাড়া পেট্রোবাংলার হিসাবে স্বচ্ছতা নেই। গ্যাসের উৎপাদন খরচও বাড়েনি। গ্যাস খাত উন্নয়ন তহবিলে টাকা জমা হচ্ছে। সেখান থেকে টাকা নিয়ে উন্নয়ন কাজ করা সম্ভব। এ অবস্থায় পেট্রোবাংলার আরো কেন টাকা প্রয়োজন?
সঙ্গতকারণেই প্রশ্ন উঠে, গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির এই পাঁয়তারা কি একান্ত বাধ্যগত ঔপনিবেশিক দাসের মতো বিশ্বব্যাংক আইএমএফ-এর শর্ত পালন করতে, নাকি দেশের ব্যাংক ও অর্থ ব্যাবস্থা লুটপাট করে ফোপড়া করে ফেলার পর বাড়তি অর্থ যোগাড় করতে? নাকি আইএমএফ-এর শর্ত ও লুটপাটের ঘাটতি মেটানো- উভয় কারণেই?
বিদেশী কোম্পানিগুলোকে গ্যাস উৎপাদনের দায়িত্ব দেয়া না হলে আমাদের গ্যাস উৎপাদনের খরচ আরও কম হতো। এখন বিদেশী কোম্পানিগুলোর গ্যাস উৎপাদনের যে খরচ তা দেশী প্রতিষ্ঠানগুলোর চেয়ে ১০ গুণ বেশি।
উল্লেখ্য, আবাসিক গ্যাস সংযোগ যে কেবল উচ্চবিত্তের বাড়িতেই আছে, তাও কিন্তু ঠিক নয়। সারা দেশে আবাসিক গ্রাহক সংখ্যা মোটামুটি ২৭ লক্ষ; যার বেশির ভাগই নিম্নবিত্ত-মধ্যবিত্ত। প্রতিটি পরিবারের সদস্য সংখ্যা যদি ৫ ধরা হয়, তাহলে গ্যাসের উপর নির্ভরশীল মানুষের সংখ্যা ১ কোটি ৩৫ লক্ষ। অনেক ক্ষেত্রেই সংযোগ প্রতি নির্ভরশীল মানুষের সংখ্যা ১০/১৫ জনও হয়। গ্যাসের দাম দ্বিগুণেরও বেশি বাড়ানোর ফলে এসব স্বল্প আয়ের শ্রমিক ও নিম্ন বিত্ত মানুষদের উপর তো ভীষণ চাপ পড়বে। গ্যাসের দাম বাড়ানোর সাথে সাথে বাড়ি ভাড়ায় যে বাড়তি খরচ এসব মানুষদেরকে বহন করতে হবে তার জন্য সরকার কি তাদের মজুরী/বেতন বাড়ানোর দায়িত্ব নেবে?
গ্যাস দিয়ে শুধু রান্নাঘরই চলছে না, যানবাহন ও কলকারখানা থেকে শুরু করে প্রায় প্রতিটি ক্ষেত্রেই গ্যাসের চাহিদা ব্যাপক। সুতরাং গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধিতে সবকিছুর উপরই মারাত্মক বিরূপ প্রভাব ফেলবে। বিশেষত দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিসহ রফতানীও চরম ক্ষতিগ্রস্ত হবে। অপরদিকে প্রাপ্ত তথ্য মতে, ছয় বছরে কেবল রেন্টাল-কুইক রেন্টালেই ভর্তুকি দিতে হয়েছে ৪১ হাজার কোটি টাকা।
একদিকে সরকারি খাতের অর্থের অভাবের কথা বলে বেসরকারি খাতে বিদ্যুৎ সেক্টর তুলে দেয়া হয়েছে অন্যদিকে বেসরকারি খাতের অর্থও সরকারকে জোগাড় করে দিতে হচ্ছে, সার্বভৌম গ্যারান্টি দিতে হচ্ছে। সঙ্গতকারণেই আমাদের জোড়ালো প্রশ্ন, বেসরকারি খাতে বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের জন্য যদি সরকারকেই অর্থের ব্যবস্থা করে দিতে হয় তাহলে বেসরকারি কোম্পানির হাতে বিদ্যুৎ খাত তুলে দেয়ার যুক্তি কি? এটা যে নেহায়েত তাদের যোগসাজসে সরকারী লুটপাট তা এখন ওপেন সিক্রেট।
বলাবাহুল্য, গ্যাস ও বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি শিল্প ও কৃষিখাতের উপর আরও বাড়তি চাপ পড়বে তা দেশের মানুষের অজানা নয়। শিল্প খাতের উপর এই মূল্যবৃদ্ধির চাপ আরো বেশি হবে। শিল্পখাতকে একদিকে ব্যাংকের উচ্চ হারে সুদ গুণতে হচ্ছে অন্যদিকে অন্যান্য দেশের সাথে প্রতিযোগিতার ক্ষেত্রে রফতানীমুখী শিল্পে হিমসিম খেতে হচ্ছে। পাশাপাশি যেসব ছোট-বড় শিল্প পণ্য উৎপাদন করে যাচ্ছে তাদের পণ্যেরও উৎপাদন ব্যয় বাড়বে। ফলে যেসব পণ্যের ভোক্তা সাধারণ মানুষ তাদেরও চাহিদা সীমিত হবে। আর এর বিরূপ প্রতিক্রিয়া হবে পণ্য উৎপাদনকারী শিল্পগুলোর উপর।
কৃষি খাতেও সৃষ্টি হবে একই অবস্থা। আজকাল ধানসহ অধিকাংশ খাদ্য পণ্য উৎপাদনের জন্য যে চাষ হয় তা অনেকটাই নির্ভর করে বিদ্যুৎ চালিত সেচ ব্যবস্থার উপর। বৃষ্টিপাতের পরিমাণ আগের তুলনায় কমে যাওয়ায় নদী খাল বিল বা অন্য কোনো স্থানের পানি সেচ কাজে ব্যবহার করা যায় না। সেচের কাজে বিদ্যুৎ ব্যবহার না করলেই হয় না। বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির ফলে সেচ কাজে ব্যয়ের পরিমাণ বেড়ে যাবে তা হবে উৎপাদন খরচ বেড়ে যাওয়া। কৃষি পণ্যের উৎপাদন খরচ বাড়লে চাষী ও ভোক্তা উভয়কেই তার চাপ সহ্য করতে হয়। সপ্তমবারের মতো বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর দুর্ভোগও পোহাতে হবে উৎপাদক চাষী ও ভোক্তা সাধারণ মানুষ।
বলার অপেক্ষা রাখে না, সরকার চলছে জনগণকে শোষণ করে। কিন্তু জনগণ মুখ খুলছে না। জনগণ তার প্রতিবাদও করছে না। অথচ পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “তোমরা জালিমও হয়ো না, মজলুমও হয়ো না।” কাজেই সরকারের সব শোষণ, লুটপাট আর দুর্নীতির প্রতিবাদ করা ও প্রতিহত করা ফরয।
মূলতঃ এসব অনুভূতি ও দায়িত্ববোধ আসে পবিত্র ঈমান ও পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনাদের অনুভূতি ও প্রজ্ঞা থেকে। আর তার জন্য চাই নেক ছোহবত তথা মুবারক ফয়েজ, তাওয়াজ্জুহ।
যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, যামানার মুজাদ্দিদ, মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার নেক ছোহবতেই সে মহান ও অমূল্য নিয়ামত হাছিল সম্ভব। মহান আল্লাহ পাক তিনি আমাদেরকে তা নছীব করুন। (আমীন)
দেশের খবর
ঘাটতির অতলে সার্ক বাণিজ্য
গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি জাতীয় স্বার্থের পরিপন্থী
সোনা চোরাচালানে চাঞ্চল্যকর তথ্য
প্রথম আলো-নয়া দিগন্ত বন্ধের দাবিতে সমাবেশ
মোবাইল কোর্ট বসিয়ে নির্বাচনের পরিকল্পনা আগে থেকেই হাসিনার ছিলো -ব্যারিস্টার রফিকুল
শাবিপ্রবিতে ১৯ রামদা-পিস্তলসহ ১৭ ছাত্রলীগ কর্মী আটক
কৃষিঋণ বিতরণে ৭ ব্যাংকের অবস্থান শূন্য
পেঁয়াজ-রসুন ও ডিমের দাম বাড়তি
স্কুলে ভর্তি ফি ১০ হাজারের বেশি নয়
ঝিমিয়ে পড়ছে সরকারি পাটকলগুলোও
তীব্র অর্থ সঙ্কটে ধুকছে মোবারকগঞ্জ চিনিকল: ২ মাস ধরে বেতন বন্ধ ১ হাজার শ্রমিকের
চৌকস ও শক্তিশালী সশস্ত্র বাহিনী গড়ে তুলতে চাই - প্রধানমন্ত্রী
দুর্নীতির নায়কের অপেক্ষায় বিএনপি -হাছান মাহমুদ
রাজধানীতে প্রধানমন্ত্রীর আত্মীয়ের লাশ উদ্ধার
বাংলাদেশ সাশ্রয়ী জ্বালানির প্রণোদনা দিচ্ছে
ভারত গেল একটি সংসদীয় দল
ছাত্রলীগ আওয়ামী লীগের বিষফোঁড়া -মির্জা আব্বাস
হলুদের ছোঁয়ায় ১০ হাজার কৃষকের রঙিন জীবন
বিশ্বের সুখীময় স্থানের তালিকায় বাংলাদেশ অষ্টম
বঙ্গোপসাগরে ভারতীয় ২৬ জেলে আটক
তিস্তা ব্যারাজে ফাটলের অযুহাতে কোটি টাকা রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার
পদ্মা সেতু নির্মাণের প্রথম ধাপ শেষ
আ’লীগ ক্ষমতায় থাকলে বিএনপির অস্তিত্ব থাকবে না - ফখরুল
খালেদা আন্দোলনের নামে সন্ত্রাসের হুমকি দিচ্ছেন -ইনু
মাদকবিরোধী অভিযান: ১০ হাজার ইয়াবাসহ মাইক্রোচালক আটক
যাত্রাবাড়ী আড়তে ফুলকপি বিক্রিতে ধস
‘স্বর্ণ চোরাচালানের দায় বিমানমন্ত্রী এড়াতে পারেন না’
চট্টগ্রামে আগুনে পুড়লো কয়েকটি বসত ঘর
গ্যাস তহবিলের ৩ হাজার কোটি টাকা লুটপাট -জুনায়েদ সাকি
মাদক ব্যবসার অভিযোগ
না.গঞ্জে এসআইসহ চার পুলিশ সদস্য বরখাস্ত
সরকারকে পদত্যাগের আহ্বান বি. চৌধুরীর
আরো সাড়ে পাঁচ হাজার বস্তা সার লাপাত্তা
ভালুকায় ৪৪০ বস্তা ভারতীয় চোরাই চাল উদ্ধার
দক্ষিণাঞ্চলে সেনাবাহিনীর নতুন ডিভিশন হচ্ছে
Anjuman-e Al Baiyinaat, Sweden






For the satisfaction of Mamduh Hazrat Murshid Qeebla Alaihis Salam
Site designed & developed by Muhammad Shohel Iqbal