• কায়িনাত আজ কার ইশকের তামান্নায় মাতোয়ারা
  • আওলাদে রসূল হযরত শাহযাদা হুযূর ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী-এর সুমহান বিলাদত শরীফ দিবস ক্ষণে
  • মুজাদ্দিদে আ’যমে ছানী হযরত শাহযাদা হুযূর ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী-এর বিলাদত শরীফ মহান আল্লাহ পাক-এর কুদরতের অনুপম বহিঃপ্রকাশ (১)
  • মুজাদ্দিদে আ’যমে ছানী হযরত শাহযাদা হুযূর ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী-এর বিলাদত শরীফ মহান আল্লাহ পাক-এর কুদরতের অনুপম বহিঃপ্রকাশ (২)
  • মুজাদ্দিদে আ’যমে ছানী হযরত শাহযাদা হুযূর ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী-এর বিলাদত শরীফ মহান আল্লাহ পাক-এর কুদরতের অনুপম বহিঃপ্রকাশ (৩)
  • আওলাদে রসূল মামদূহ হযরত শাহযাদা হুযূর ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী-এর সন্তুষ্টিই মুজাদ্দিদে আ’যম, নূরে মুর্কারম মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী-এর সন্তুষ্টি এবং কামিয়াবী হাছিলের প্রধান মাধ্যম
  • শানে বিলাদাতে মুজাদ্দিদে আ’যমে ছানী (১)
  • শানে বিলাদতে মুজাদ্দিদে আ’যমে ছানী (২)
  • শানে বিলাদাতে মুজাদ্দিদে আ’যম ছানী (৩)
  • শানে বিলাদাতে মুজাদ্দিদে আ’যম ছানী (৪)
  • শানে বিলাদাতে মুজাদ্দিদে আ’যম ছানী (৫)
  • শানে বিলাদতে মুজাদ্দিদে আ’যমে ছানী (৬)
  • আসমান ও যমীনবাসীর আজ খুশীর দিন ॥ ছানিয়ে মুজাদ্দিদে আ’যম আজ বিলাদত শরীফ-এর দিন
  • মুজাদ্দিদে ছানী, লখতে জিগারে মুজাদ্দিদে আ’যম, আওলাদে রসূল হযরত শাহজাদা হুযূর ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী উনার মর্যাদা-মর্তবা
  • “ত্বলায়াল বাদরু আলাইনা” ৯ই রমাদ্বান সোমবার শরীফ ‘পূর্ণিমার চাঁদ’ উঠল বাংলার আকাশে
  • শানে বিলাদাতে মুজাদ্দিদে আ’যম ছানী (৫)

    শাহযাদা! তিনি মুর্শিদী আওলাদ জাহান মাঝে সেরা। তিনি আজ ফারুকী, হায়দারী জোশে উঠেছেন জলসে। উনার প্রলয়ঙ্করী ঝড়ে বিধর্মীও উলামায়ে ‘ছূ’রা যায় মরু বিয়াবানে। তিনি অপূর্ব, অতি উন্নত, অমর দীপ্তমান অসি। তিনি ইবলিছের দাম্ভিকতার শিরকর্তনকারী। তিনি আবু জাহিল, আবু লাহাব, ওতবা, শায়বা, মুগিরার উত্তরসূরিদের প্রাণ বধকারী। তিনি অসত্য ও নাহক্বের জীবন নাশকারী। তিনি তো ছহিবে নাছির।
    তিনি তো হক্ব তায়ালার পক্ষ থেকে ইসলামের নাজির। তিনি তো বাতিল গ্রাসে এক অভূতপূর্ব, অভিন্ন মিসাইল। উনার হাঁকে যেন হাঁক হাঁকে খোদ আযরাইল। তিনি অপূর্ব খোদায়ী মহাশক্তিধর, যাঁর কাছে বাতিল শক্তি উড়ন্ত ধুলিবালির ন্যায় অতি ক্ষুদ্রতর। সেদিন আর বেশি দূরে নয়; যেদিন তিনি সকল মুনাফিক, উলামায়ে ‘ছূ’ এবং বিধর্মীদেরকে নরকী দাবানলে দগ্ধীভূত করে ধরণীর বুকে নববী যুগের ইসলামকে দায়িম-ক্বায়িম করবেন। তিনি তো খলীফাতুল্লাহ, খলীফাতু রসূলিল্লাহ, খলীফায়ে মুজাদ্দিদে আ’যম। শাহজাদা!
    তিনি আউলিয়া গগনে আফতাব (সূর্য) তুল্য আর বাকি সবাই তারকা তুল্য। সূর্যের আলোর কাছে যেমন সমস্ত তারকার আলো ম্লান হয়ে যায়, তেমনিভাবে তাঁর শান-মান, মর্যাদা-মর্তবা, বুযূর্গীর কাছে সকলের শান, মান, মর্যাদা-মর্তবা, বুযূর্গী ম্লান হয়ে যায়। শুধু তাই নয়, তিনি এমন এক খোদায়ী সূর্য যে সূর্যের কাছে গগনের সূর্যও লজ্জায় মাথা অবনত করে।
    কেননা গগনের সূর্য শুধু সৌরজগৎকে আলোকিত করে এবং এক সময় তা ধ্বংস হয়ে যাবে। কিন্তু তিনি এমন এক সূর্য যিনি সমস্ত কায়িনাতকে আলোকিত করেন, করবেন এবং হাবীবী গুণে উনার শান, মান, মর্যাদার প্রখরতা, দুনিয়া-আখিরাত, কবর, হাশর-নশর, মীযান, পুলছিরাত এবং জান্নাতে ও চির অক্ষয় থাকবে। মেশক যেমন হরিণের দেহের একটি অংশ হয়েও সমস্ত শরীরের মধ্যে সর্বশ্রেষ্ঠ মর্যাদা-মর্তবার অধিকারী, তেমনিভাবে তিনি ওলী হয়ে সমস্ত ওলীদের মধ্যে সর্বশ্রেষ্ঠ মর্যাদা-মর্তবার অধিকারী। তিনি ছিবগাতুল্লাহ। তিনি তো রুহুল্লাহ।
    তিনি তো হাবীবুল্লাহ। তিনি তো হাবীবে রসূলিল্লাহ তিনি তো খোদ আরশের অধিবাসী। তিনিতো আছেন আল্লাহ পাক এবং উনার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের দীদারেতে দায়িমী মিশি। তিনি তো মুজাদ্দিদ আ’যম উনার পরিপূর্ণ নায়িব। তিনি তো তামাম জ্বিন-ইনসানের ছহিব। তিনি বেমেছাল। তিনিই উনার মিছাল। তিনি উনার গুণে লা-শারীক। ওলীকুল উনার ছিফত লাভের তরে আশিক্ব।
    লিখকের লিখা, কবির কবিতা, খতীবের খুৎবা উনার শান-মান বয়ান করতে অক্ষম; যদিও তামাম সৃষ্টি কিয়ামত অবধি চেষ্টা করে তবুও হবে না সক্ষম। উনার শান-মান, মাখলুকের জ্ঞানের বাহিরে বিরাজমান। তিনি নববী তামাম গুণ লয়ে হয়েছেন জাহিরান। উনার শান-মান প্রকাশ করে সৃষ্টি হয় ইলাহী জ্ঞানে জ্ঞানবান।
    Anjumane Al Baiyinaat, Bangladesh
    5, Outer Curcular Road Rajarbag Dorbar Shareef, Dhaka